ইয়োলো ফিভার


ইয়োলো ফিভার

আজকে আমরা জানবো ইয়েলোফিভার কি?  এবং আফ্রিকা মহাদেশে প্রবশের ক্ষেত্রে ইয়োলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন এর প্রয়োজনীয়তা কত টুক।

ইয়োলো ফিভার কি ?

ইয়েলো ফিভার হল একটি ভাইরাস জনিত রোগ সাধারণত আফ্রিকা এবং আমেরিকার গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলে এই রোগটি দেখা যায়।সাধারণত, মশার কামড়ের মাধ্যমে এই রোগ সংক্রামিত হয়ে থাকে ।এই জ্বরের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হলো ভ্যাক্সিনেশন বা টীকা । ভ্যাকসিনটি অনেক নিরাপদ, সাশ্রয়ী মূল্যের এবং অত্যন্ত কার্যকর । তাই ইয়েলো ফিভার সংক্রমণ প্রবন দেশগুলোতে যাওয়ার পূর্বে অব্শ্যই এই রোগের প্রতিষেধক টীকা নিতে হবে। অন্যথায় ঐসব দেশের ইম্মিগ্র্যাশন অথরিটি কোনোভাবেই আপনাকে এন্ট্রি ক্লিয়ারেন্স দিবেনা।
ভ্যাকসিনটি ৩০দিন এর মধ্যেই প্রতিরোধক হিসেবে মানুষের শরীরে কাজ করা শুরু করে।

আসুন জেনে নেই কোন কোন দেশে যেতে হলে  ইয়েলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন অব্শ্যই নিতে হবে:

আফ্রিকা এবং দক্ষিণ আমেরিকার কিছুসংখক দেশে ইয়েলো ফিভার এর ঝুঁকি অনেক বেশি।

আফ্রিকার মধ্যে অন্যতম দেশগুলো হলো ঘানা,নাইজেরিয়া,গাম্বিয়া,বুরকিনাফাসো,সেনেগাল,কেনিয়া,উগান্ডা ,ইথোপিয়া,নাইজার সহ আরো কিছু দেশ।
সাধারণত, উপরের এই সমস্ত দেশগুলোতে ইয়েলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন ছাড়া কাওকেই কোনোভাবে প্রবেশ করতে দেয়া হয়না। ট্রাভেল ডেট এর কমপক্ষে ১০দিন পূর্বে এই প্রতিষেধক নেওয়া প্রয়োজন। তাহলে বুঝতেই পারছেন এইসব দেশগুলোতে যাবার জন্য ইয়েলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন কত বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

এবার জেনে নেওয়া যাক বাংলাদেশের কোথায় কোথায়  ইয়েলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন দেওয়া হয়ে থাকে ?

* অ্যাপোলো হাসপাতাল, ঢাকা ।

* icddr,b মহাখালী, ঢাকা ।

* ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতাল।

* DR. WAHAB’S CLINIC,IOM

ইয়েলো ফিভার ভ্যাক্সিনেশন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের ব্লগ ঘুরে দেখে আসতে পারেন। আমাদের দেওয়া তথ্য দিয়ে আপনারা কতটুকু উপকৃত হলেন অব্শ্যই আমাদেরকে কমেন্ট বক্স এ জানাবেন। কারণ আপনাদের মতামত এর উপর ভিত্তি করে আমরা আরো গুরুত্ত্বপুর্ণ তথ্য সম্পর্কিত ভিডিও আপলোড করবো।

 

error: Content is protected !!